মিনি রাইস মিল তৈরি করে 2000 টাকা প্রতিদিন উপার্জন করুন | Mini Rice Mill Business right now

আমরা সবাই জানি আমাদের দেশ কৃষি প্রধান দেশ, আর এই কৃষি প্রধান দেশে রাইস মিল ব্যবসা (Mini Rice Mill Business) অনেক লাফিয়ে চলছে বর্তমান সময়ে। আপনি আপনার গ্রামে শুরু করতে পারেন মিনি রাইস মিল মেশিন কিনে একটি রাইস মিল ব্যবসা। এখনো অনেক গ্রামের একটাও রাইস মিল না থাকার কারণে গ্রামের মানুষেরা মাইলের পর মাইলে গিয়ে ধান গম পেশাই করাই। আপনি যদি ধান ভাঙ্গানোর ব্যবসা এমন গ্রামের আশেপাশে শুরু করেন তাহলে আপনি খুব সহজেই এই ব্যবসা থেকে প্রচুর টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

সাধারণত বড় রাইস মিল ব্যবসা করার জন্য অনেক নিজের প্রয়োজন পড়ে কিন্তু মিনি রাইস মিল ব্যবসা করতে খুব অল্প পরিমাণ টাকার বিনিয়োগে শুরু করা যায়। তাই আজ রাইস মিল ব্যবসা সম্পর্কিত যাবতীয় তথ্য নিয়ে আজকের এই প্রতিবেদনটি রচিত হলো। সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়লে আপনি নিজে উদ্যোগে শুরু করতে পারবেন আপনার এলাকায় রাইস মিল ব্যবসা।

Table of Contents

মিনি রাইস মিল ব্যবসা কিভাবে শুরু করা যায়? (How to start mini rice mill business?)

রাইস মিল ব্যবসা শুরু করার আগে আপনাকে নির্বাচন করতে হবে এই ব্যবসা কোথায় শুরু করবেন সেই জায়গাটি। তাই এমন একটি জায়গা নির্বাচন করতে হবে যেখানে মিনি রাইস মিল বা কোন প্রকারেরই রাইস মিল নেই। আবার আপনি চাইলে একটি গাড়িতে এই রাইস মিল মেশিন বসিয়ে গ্রামে গ্রামে ঘুরে ঘুরে ধান, গম ভাঙ্গিয়ে ভালো টাকা উপার্জন করতে পারেন। রাইস মিল ব্যবসা করার আগে আপনাকে যথেষ্ট বেশি পরিমাণে মার্কেটে রিসার্চ করতে হবে অথবা আপনি যদি আগে থেকে এমন কোন জায়গা জেনে থাকেন যেখানে কোন প্রকার রাইস মিল নেই তাহলে খুব সহজেই সেই জায়গাতে ব্যবসা শুরু করতে পারেন। এই ব্যবসা করার জন্য শুধু প্রয়োজন পড়বে একটি ছোট জায়গা যেখানে আপনি রাইসমিল বসিয়ে ধান বা গম ভাঙ্গাবেন, এবং প্রয়োজনীয় ইলেকট্রিকের দরকার পড়বে।

অবশ্যই পড়ুন- চিনির পাইকারি ব্যবসা বদলে দেবে আপনার জীবন

মিনি রাইস মিল মেশিনের দাম কত? (What is the price of mini rice mill machine?)

রাইস মিল ব্যবসা করার আগে আপনাকে মেশিনের দাম সম্পর্কে সচেতন হতে হবে এবং জানতে হবে। কারণ বর্তমান সময়ে বিভিন্ন ধরনের রাইস মিল মেশিন বাজারে বিক্রি হলেও উন্নত মানের ভালো মেশিন নির্বাচন করতে হবে। বর্তমানে বিভিন্ন কোম্পানি 25 হাজার টাকা থেকে 40 হাজার টাকার মধ্যে বিভিন্ন ধরনের মেশিন বিক্রয় করে থাকে। বর্তমানে রাইস মিল মেশিন দু ধরনের পাওয়া যায়।

  1. ইলেকট্রিক মটর লাগানো রাইস মিল মেশিন
  2. পেট্রোল ইঞ্জিন বসানো রাইস মিল মেশিন

তবুও আপনাদের বোঝার জন্য বলা যেতে পারে-

  • 2 HP মিনি রাইস মিল (2 HP Mini Rice Mill) মেশিনের দাম 25 হাজার টাকা।
  • 3 HP মিনি রাইস মিল (3 HP Mini Rice Mill) মেশিনের দাম 30 হাজার টাকা থেকে 35 হাজার টাকা।
  • মিনি কম্বাইন রাইস মিল (Mini Combine Rice Mill) মেশিনের দাম 40 হাজার টাকা।
  • সমস্ত রাইস মিল মেশিনগুলি যদি ইলেকট্রিক মটরের পরিবর্তে আপনি পেট্রোল ইঞ্জিন বা ডিজেল ইঞ্জিন বসানো নিতে চান তাহলে 5 থেকে 10 হাজার টাকা করে বাড়বে প্রতিটা মেশিন।
Mini Rice Mill Machine
মিনি রাইস মিল মেশিন

মিনি রাইস মিল মেশিন কোথায় কিনতে পাওয়া যায়? (Where to buy mini rice mill machine?)

বর্তমানে ভারতের প্রায় সমস্ত রাজ্যে বিভিন্ন মেশিন ম্যানুফ্যাকচারার কোম্পানির ডিস্ট্রিবিউটার থাকার কারণে সমস্ত জায়গা থেকেই মেশিন কেনার ব্যবস্থা রয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের কলকাতার মধ্যে একাধিক মেশিন ম্যানুফ্যাকচারার কোম্পানি যারা মিনি রাইস মিল মেশিন তৈরি করে আপনারা চাইলে সেই সব কোম্পানির কাছ থেকে মেশিন কিনে ব্যবসা করতে পারেন। আবার বাংলাদেশে যারা রয়েছেন তারা ঢাকার মেশিন ম্যানুফ্যাকচারার কোম্পানির কাছ থেকে রাইস মিল মেশিন কিনে ব্যবসা করতে পারেন।

তাই আপনাদের সুবিধার্থে বিভিন্ন মেশিন ম্যানুফ্যাকচারার কোম্পানির ফোন নাম্বার নিচে দেওয়া হল আপনারা প্রয়োজন অনুযায়ী ফোন করে কথা বলে মেশিন কিনবেন। আপনারা চাইলে এইসব কোম্পানিতে ভিজিট করে মেশিন সম্পর্কে জ্ঞান নিয়ে ব্যবসা শুরু করতে পারেন। এমন কিছু কোম্পানি আছে যারা সম্পূর্ণ টাকা না দিতে পারলেও ফাইনান্সে মেশিন বিক্রি করে। প্রতিটি রাইস মিল মেশিনে একাধিক জালি দিয়ে থাকে প্রতিটি কোম্পানি।

  • 90023 72097
  • 758 496 9501
  • 985 521 9706 (পশ্চিমবঙ্গ)
  • 0174 2474 344 (বাংলাদেশ)

রাইস মিল কারখানা তৈরি করতে কত বড় জায়গার প্রয়োজন?

রাইস মিল কারখানা তৈরি করতে অনেক বড় জায়গার প্রয়োজন পড়ে। তবে আপনি যেহেতু আপনার গ্রামে Mini Rice Mill Business শুরু করছেন সে ক্ষেত্রে আপনাকে কমপক্ষে 10/10 একটি ঘরে ব্যবসাটি শুরু করতে হবে। আপনার কাছে যদি এই পরিমাণ এর জায়গা বা ঘর না থাকে তাহলে ও আপনি আরো ছোট জায়গাতে একটি মেশিন বসিয়ে ব্যবসা করতে পারেন। তবে সাধারন রুমের মতো পর্যাপ্ত পরিমাণে জায়গা যদি একটি ঘরের মধ্যে থাকে তাহলে এই ব্যবসা করার ক্ষেত্রে কোন সমস্যার মধ্যেও আপনাকে পড়তে হবে না। ধানের বস্তা স্টোর করে রাখা এবং তৈরি হয়ে যাওয়া চালের বস্তা স্টোর করে রাখার মত অল্প জায়গার প্রয়োজন পড়বে এই ব্যবসা করার জন্য।

আরো পড়ুন- চালের পাইকারি ব্যবসা

অটো রাইস মিলের ব্যবসা করতে কি কি লাইসেন্স লাগে? (What license is required to do auto rice mill business?)

যেকোনো ব্যবসা শুরু করতে গেলে লাইসেন্সের প্রয়োজন হলেও আপনি যখন আপনার এলাকায় ছোট করে অটো রাইস মিল মেশিন কিনে একটি রাইস মিলের ব্যবসা শুরু করবেন তখন শুরুর দিকেই আপনাকে কোন লাইসেন্স নিতে হবে না। Mini Rice Mill Business শুরু করার সময় কোনরকম লাইসেন্স না লাগলেও ব্যবসায় যখন অনেক টাকা উপার্জন করা শুরু করবেন এবং আপনার ব্যবসা যখন ধীরে ধীরে বড় হয়ে উঠবে তখন কোন আইনি জটিলতা থেকে এড়ানোর জন্য আপনি ট্রেড লাইসেন্স ও কমার্শিয়াল ইলেকট্রিক লাইসেন্স নিয়ে নিতে পারেন।

অটো রাইস মিল মেশিন যদিও বাড়ির টু-টোয়েন্টি ভোল্টে চলে তবুও যেহেতু ব্যবসা করছেন তাই কমার্শিয়াল ইলেকট্রিক নেয়ার প্রয়োজনীয়তা অনেক বেশি। আর আপনার এলাকায় বা আপনার রাজ্যে ব্যবসার জন্য যে ট্রেড লাইসেন্স বানাতে হয় তা আপনাকে বানিয়ে নিতে হবে।
কমার্শিয়াল ইলেকট্রিক এর জন্য আপনি যে কোন ইলেকট্রিক অফিসে যোগাযোগ করতে পারেন। আর ট্রেড লাইসেন্স নেবার জন্য অনলাইনে আবেদন করে ট্রেড লাইসেন্স নিতে পারেন।

মিনি রাইস মিল মেশিন কিভাবে কাজ করে? (How does mini rice mill machine work?)

আপনি যদি গ্রামে থেকে থাকেন আর আপনি রাইস মিল ব্যবসা (Mini Rice Mill Business) শুরু করতে চান তাহলে আপনি নিজে রাইস মিল মেশিনে কিভাবে কাজ হয় তা সম্পর্কে আগে থেকেই জানেন। কারণ গ্রামের প্রতিটি ছেলে ধান ভাঙ্গানোর সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া সম্পর্কে অবগত। রাইস মিল মেশিনে সেই পুরনো পদ্ধতির নিয়মই নতুনের মেলবন্ধন ঘটিয়ে আধুনিক অটো রাইস মিল তৈরি হয়েছে। এই রাইস মিল মেশিনের কাজ হল-

  • মেশিনের ওপরে যেখানে ধান ঢালা হয় সেখানে ধান ঢালার পর মেশিন চালিয়ে দিতে হবে।
  • মেশিন চলতে শুরু করলে ধান থেকে চাল বেরতে থাকবে এক সাইড দিয়ে। আরেক সাইটে ভাঙ্গাচাল বেরোবে এবং পেছনের দিক থেকে ধানের খোসা বা কুঁড়ো বেরোবে।
  • এই একই মেশিনে আপনি চাইলে চাল গুঁড়ো, গম ভাঙিয়ে আটা এবং সব ধরনের মসলা পেশাই করতে পারবেন।
  • 3 HP মটরযুক্ত রাইস মিল গুলি প্রতি ঘন্টায় 100 কেজি থেকে 150 কেজি চাল তৈরি করতে পারে।
  • 70 কেজি ধান থেকে 45-50 কেজি চাল পাওয়া যায়। তাই আপনি যখন রাইস মিল ব্যবসা করবেন তখন প্রতি কেজি ধান ভাঙ্গানোর ওপর নির্দিষ্ট পরিমাণের টাকা ধার্য করতে পারেন।

অটো রাইস মিল ব্যবসার প্রতিমাসের খরচ কত? (What is the monthly cost of auto rice mill business?)

অটো রাইস মিল মেশিন কিনে আপনি যখন মিনি রাইস মিল ব্যবসা শুরু করবেন তখন আপনাকে আগে থেকেই হিসেব করে নিতে হবে আপনার প্রতি মাসের খরচ টা। আপনি যদি লেবার নিয়ে কাজ করেন তাহলে লেবারের প্রতি মাসের মাইনে, ইলেকট্রিক বিল এবং আপনার নিজস্ব মাইনে ও আনুষাঙ্গিক কিছু খরচের লিস্ট আপনাকে তৈরি করে নিতে হবে। তাই অটো রাইস মিল ব্যবসার প্রতিমাসের খরচের একটি তালিকা দেওয়া হল-

  • 8 ঘন্টা মেশিন চললে ইলেকট্রিক 16 ইউনিট খরচ হবে প্রতিদিন।
  • একজন লেবারের প্রতি মাসের মাইনের 7000 টাকা
  • আনুষাঙ্গিক খরচ আরো 3 হাজার টাকা।
  • প্রতি মাসের খরচ 15 হাজার টাকার মতো।
Mini Combine Rice Mill
মিনি কম্বাইন রাইস মিল

রাইস মিল ব্যবসা করতে কত টাকা লাগে? (How much money does it take to do rice mill business?)

রাইস মিল ব্যবসা (Mini Rice Mill Business) করতে অল্প পুনিয়োগ করতে হলেও আপনি যদি এই ব্যবসা বড় করে করতে চান তাহলে কয়েক লাখ টাকা বিনিয়োগ করা যেতে পারে। তবে একটা ছোট অটো রাইস মিল মেশিন বা মিনি রাইস মিল মেশিন কিনে ব্যবসা করতে আপনার খরচ হবে কমপক্ষে 50 হাজার টাকার মতো। আর আপনি যদি চান একই জায়গাতে দুটো কি তিনটি মেশিন বসিয়ে বেশি করে প্রোডাকশন তৈরি করবেন তাহলে একই জায়গাতে মেশিন শুধু নতুন কিনে ব্যবসা করতে আপনার মেশিনের দামটাই খরচ হবে।

আর আপনি যদি সম্পূর্ণরূপে একটি বড় রাইস মিল ব্যবসা শুরু করতে চান সেক্ষেত্রে আপনার মেশিন কিনতেই খরচ পড়ে যাবে 16 থেকে 18 লক্ষ টাকা। তাই ব্যবসার শুরুটা আপনি ছোট মিনি রাইস মিল মেশিন কিনেই শুরু করুন। ব্যবসা করে বুঝুন মার্কেট চাহিদা কেমন আছে এবং আপনি কিভাবে মার্কেটে নিজের জায়গা তৈরি করতে পারবেন সেটা বুঝুন।

অবশ্যই পড়ুন- 1 হাজার টাকায় ভিনিগার তৈরির ব্যবসা

রাইস মিল ব্যবসায় কিভাবে মার্কেটিং করবেন? (How to do marketing in Mini Rice Mill business?)

বহু প্রাচীন সময় থেকে ভারতে এবং বাংলাদেশ চাষবাস হওয়ার কারণে মানুষ ধান ভাঙ্গানোর জন্য ঢেঁকির পরিবর্তে অটোমেটিক ইলেকট্রিক মেশিনের ব্যবহার শিখেছে। তাই আগে থেকেই আপনার এলাকার আশেপাশে কোথাও না কোথাও রাইস মিল ব্যবসা চলছে। নতুন করে আপনি যখন একটি মিনি রাইস মিল ব্যবসা শুরু করবেন সে ক্ষেত্রে সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছানোর জন্য এবং আপনার কাছে মানুষ ধান নিয়ে আসার জন্য আপনাকে সঠিকভাবে মার্কেটিং করতে হবে। যেহেতু গ্রাম বাংলায় আপনি এই ধান ভাঙ্গানোর ব্যবসা শুরু করতে চলেছেন তাই সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষের দিকে লক্ষ্য করে আপনাকে মার্কেটিং পদ্ধতিগুলি সাজাতে হবে। তাই যে পদ্ধতিতে মার্কেটিং করলে আপনার ব্যবসার দ্রুততার সাথে উন্নতি ঘটবে তা হল-

  • গ্রামে গ্রামে মাইকিং করে প্রচার করতে পারেন আপনি নতুন রাইস মিল তৈরি করেছেন এবং অন্য রাইস মিলের থেকে কম খরচে ধান গম বানিয়ে দেবেন।
  • বিভিন্ন এলাকায় এলাকায় ফ্লেক্স ছাপিয়ে প্রচার করতে পারেন আপনার রাইস মিল কোম্পানির।
  • একটা ছোট মিনি রাইস মিল মেশিন গাড়ির ওপরে তুলে পাড়ায় পাড়ায় গিয়ে ধান ভাঙ্গিয়ে সাধারণ মানুষের উপকার করতে পারেন এবং একটু বেশি টাকা উপার্জন করতে পারেন।
  • আপনার কাছে ধান ভাঙ্গানো জন্য যে সকল সাধারণ মানুষ আসবে তাদের ধান ভাঙ্গানোর পর অন্য ব্যবসায়ীদের থেকে অল্প টাকা প্রতি কেজি ধানে চার্জ করুন। এতে সাধারণ মানুষের আস্থা বাড়বে আপনার ওপরে।
  • ধান ভাঙানোর পরে চালের কোয়ালিটি সব সময় পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন যেন থাকে তার দিকে খেয়াল দিন।

মিনি রাইস মিল ব্যবসায় লাভ কত? (How much profit in mini rice mill business?)

রাইস মিল ব্যবসা অল্প পুঁজি দিয়ে শুরু করা হলেও এই ব্যবসায় লাভ হয় অনেকটাই বেশি পরিমাণে। কারণ সাধারণ মানুষ ধান ভাঙ্গানো জন্য আপনার কাছে অবশ্যই আসবে, আর প্রতিদিন ধান ভাঙ্গানোর জন্য আপনি নির্দিষ্ট পরিমাণের টাকা ধার্য করলেও ভালো টাকা উপার্জন করতে পারবেন। আপনি যদি ছোট করেও শুরু করেন তাহলে প্রতি কেজি ধান ভাঙ্গাতে 2 টাকা করে নিলেও এক বস্তায় 60 কেজি ধান ভাঙ্গালেই 60 টাকা আয় করবেন।

আপনাকে দেখতে হবে আপনার এলাকাতে বাকি রাইস মিল গুলো প্রতি কেজি ধানে কত টাকা করে নিচ্ছে তার ওপরে ভিত্তি করে আপনাকে টাকা নিতে হবে। তবে আপনি প্রতি কেজি ধান থেকে যদি 2 টাকা লাভ রাখতে পারেন তাহলেও আপনি প্রতিদিন কমপক্ষে 2000 টাকা আয় করতে পারবেন। আপনি যদি খোঁজ নেন তাহলে দেখতে পাবেন আপনার এলাকার একটি ছোট রাইস মিল কোম্পানি প্রতি মাসে 40 থেকে 50 হাজার টাকা খুব সহজেই আয় করছে।

জিজ্ঞাসিত প্রশ্ন ও FAQ

মিনি রাইস মিল ব্যবসা কোথায় শুরু করা যায়?

উত্তর: যেহেতু গ্রামাঞ্চলের দিকে চাষবাস হয় তাই আপনি রাইস মিল ব্যবসা গ্রামাঞ্চলের দিকেই শুরু করলে বেশি লাভবান হবেন।

অটো রাইস মিল ব্যবসা করতে কত টাকা লাগে?

উত্তর: 50 টাকা থেকে 70 হাজার টাকা বিনিয়োগ করতে হয় অটো রাইস মিল ব্যবসা করতে হলে।

মিনি অটো রাইস মিলের দাম কত?

উত্তর: 24 হাজার টাকা থেকে 40 হাজার টাকার মধ্য বিভিন্ন ধরনের মিনি অটো রাইস মিল পাওয়া যায়।

Mini Rice Mill Price in Kolkata?

উত্তর: 23 হাজার থেকে 38 হাজার টাকা।

অটো রাইস মিলের ব্যবসায় লাভ কত?

উত্তর: প্রতিদিন কমপক্ষে 1 হাজার টাকা করে লাভ হলেও 30 হাজার টাকা লাভ থাকে

নতুন নতুন ব্যবসার আইডিয়া দেখুন-

পাপোশ তৈরীর ব্যবসা করুন

মাছ চাষের ব্যবসা শুরু করার সকল তথ্য

Leave a Comment