গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা করুন বিনা পুঁজিতে | Make car wash business for 1 rupee only, Right now

বর্তমান সময়ে মানুষের ব্যস্ততার কারণে তাদের প্রিয় গাড়ি তারা সর্বদা পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে পারেন না। তাই আপনি যদি গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা শুরু করেন তাহলে অবশ্যই আপনি এই ব্যবসা থেকে ভালো টাকা ইনকাম করতে পারবেন। বর্তমান সময়ে খুবই অল্প পুঁজি বিনিয়োগে গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা দ্রুততার সাথে জনপ্রিয়তা লাভ করছে। এখন মানুষের কাছে অল্প টাকা থাকলেই তারা ছোট বড় বিভিন্ন প্রকার গাড়ি কিনে নেন যাতায়াতের সুবিধার্থে কিংবা স্ট্যাটাস মেন্টেন করার জন্য। তাই বর্তমান সমগ্র বিশ্বে গাড়ির সংখ্যাও দিনে দিনে বৃদ্ধি পাচ্ছে।

আর গাড়ির সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার সাথে সাথে গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা ও ধীরে ধীরে জনপ্রিয়তা লাভ করেছে শহরাঞ্চলের কিছু মধ্যবিত্ত মানুষের মধ্য। আর গাড়ি ধোয়ার ব্যবসাতে ঝুঁকি একদমই থাকে না তাই আপনিও এই ব্যবসা করতে পারেন খুব অল্প পুঁজি বিনিয়োগ করেই। চলুন দেখে নেওয়া যাক গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা কিভাবে করবেন বা কিভাবে করলে সফল হবেন।

গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা করতে কত টাকা লাগে?

সাধারণত আপনার বাড়ি যদি শহরাঞ্চলের কাছাকাছি বা শহরের মধ্য হয়ে থাকে তাহলে আপনি আপনার এলাকার যে কোন সোসাইটিতে গাড়ি ধোয়ার কাজ শুরু করতে পারেন মাত্র 1 টাকা বিনিয়োগ করে। শুনে হয়তো আপনার অবাক হওয়ারই কথা 1 টাকায় আপনি একটা ছোট শ্যাম্পুর পাতা কিনে এই গাড়ি ধোয়ার কাজ শুরু করতে পারেন। তবে একটু ভালোভাবে গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা করতে গেলে আপনাকে কয়েকটি জিনিস কিনে এই কাজ শুরু করতে হবে। এক্ষেত্রে আপনাকে ১০ থেকে ২৫ হাজার টাকা বিনিয়োগ করে কয়েকটি যন্ত্রপাতি ও গাড়ি ধোয়ার পাত্র কিনে ব্যবসা করতে পারেন। আর আপনি যদি আধুনিক পদ্ধতিতে অটোমেটিক গাড়ি ধোয়ার মেশিন কিনে এই ব্যবসা করতে চান তাহলে আপনাকে কমপক্ষে 2 লক্ষ টাকা থেকে 4 লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করতে হবে।

গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা করতে কি কি জিনিস লাগে?

গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা করার জন্য আপনাকে বেশ কয়েক রকম জিনিস কিনতে হবে। তবে ব্যবসার শুরুতেই আপনি একটা বালতি আর মগ নিয়ে একদম অল্প পুঁজিতে ব্যবসা করতে পারেন। এইরকম ভাবে বর্তমানে অনেক মানুষ আছেন যারা গাড়ি ধুয়ে জীবিকা নির্বাহ করছেন। তবে ভালোভাবে গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা করার জন্য আপনাকে যে সকল জিনিসগুলি কিনতে হবে তা হল –

  • স্পঞ্জ ব্রাশ
  • বড় বালতি
  • কার ওয়াস স্প্রে মেশিন
  • কার ওয়াস শ্যাম্পু

গাড়ি পরিষ্কারের ব্যবসা কোথায় করা যায়? (Where to start a car cleaning business?)

সাধারণত গাড়ি বেশিরভাগ দেখতে পাওয়া যায় শহরাঞ্চলে বা শহর উত্তীর্ণ গ্রামগুলিতে। তাই আপনি গাড়ি পরিষ্কারের ব্যবসা শুরু করতে পারেন এই সকল অঞ্চলগুলিতে। সাধারণত গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা করার জন্য আপনাকে শহরের এমন কোন জায়গা নির্বাচন করতে হবে যা রাস্তার ধারে হবে এবং গাড়ি ধোয়ার প্রয়োজনীয় জল পাওয়া যাবে ও জল নিকাশি ব্যবস্থা উন্নত থাকবে। এছাড়া শহরের রাস্তার ধারে যে কোন জায়গাতেই আপনি চাইলে গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা শুরু করতে পারেন। এক্ষেত্রে প্রথম প্রথম আপনার কাস্টমার সংখ্যা কম থাকলেও পরবর্তীকালে বেড়ে যাবে।

Car wash business
গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা

গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা কিভাবে করবেন? (How to start a car wash business?)

গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা করতে গেলে আপনাকে সর্বপ্রথম ঠিক করতে হবে আপনি কি ধরনের গাড়ি ধোয়া ও পরিষ্কার করতে পারবেন। আপনি চাইলে সব ধরনের গাড়ি পরিষ্কার এবং গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা করতে পারেন। আবার আপনি চাইলে শুধুমাত্র ছোট চার চাকার গাড়ি ও দুই চাকার গাড়ি ধোয়ার কাজ করতে পারেন। আবার আপনি চাইলে গ্যারেজের সঙ্গে যোগাযোগ করে বড় বড় ট্রাক থেকে শুরু করে সকল প্রকার গাড়ি ধোয়ার কাজ করতে পারেন।

অবশ্যই পড়ুন- সেলুন ব্যবসা আধুনিক পদ্ধতিতে

গাড়ি ধোয়ার দোকান তৈরি করুন

গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা করতে গেলে আপনি একটি দোকান তৈরি করুন। এই দোকানে শুধু গাড়ি ধোয়া নয় গাড়ি পরিষ্কারের পাশাপাশি গাড়ি সারানোর ছোটখাটো গ্যারেজ ও তৈরি করতে পারেন। বর্তমান সময়ে গাড়ি ধোয়ার ব্যবসার পাশাপাশি গাড়ি সারানোর গ্যারেজ ও খুব ভালোভাবে চলছে। এর জন্য আপনাকে একটু অল্প পুঁজি খরচ করে রাস্তার ধারে ছোটখাটো কাঠের গুণটি দোকান তৈরি করতে পারেন। তার সাথে গাড়ি ধোয়ার জন্য প্রয়োজনীয় সকল আধুনিক যন্ত্রপাতি ও ব্যবস্থা রাখতে পারেন।

বাড়ি থেকে বাড়িতে গাড়ির ধোয়ার ব্যবসা করুন

আবার আপনি চাইলে প্রয়োজনীয় সকল গাড়ি ধোয়ার সামগ্রী নিয়ে আপনার এলাকার বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে গাড়ি ধোয়ার কাজ করতে পারেন। এমন অনেক গাড়ি ধোয়ার ব্যবসায়ী আছেন যারা কোন রকম দোকান কিংবা গ্যারেজ না তৈরি করে কাস্টমারের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে তাদের গাড়ি ধুয়ে ইনকাম করেন। এক্ষেত্রে বাড়িতে গিয়ে গাড়ি ধোয়ার কাজ করলে একটু বেশি টাকা ইনকাম করা যায়। আবার ঘরে ঘরে গাড়ি ধোয়ার ব্যবস্থা যদি আপনি শুরু করেন আপনার গ্রাহকের সংখ্যাও অনেক বেড়ে যেতে পারে।

ভারত আর বাংলাদেশের এমন অনেক পরিবার রয়েছেন যারা তাদের গাড়ি বাইরে নিয়ে গিয়ে পরিষ্কারের থেকে ঘরেতে পরিষ্কারের উপর বেশি গুরুত্ব দেয়। তারা মনে করেন ঘরে যদি গাড়ি পরিষ্কার করা হয় তাহলে তাদের প্রিয় গাড়ি ভালোভাবে পরিষ্কার করা হবে। আর আপনি যদি গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা ঘরে ঘরে গিয়ে করতে পারেন তাহলে আপনার ইনকামের পাশাপাশি প্রচুর পরিমাণে কাস্টমার পেয়ে যাবেন।

Car wash center
গাড়ি ওয়াশ সেন্টার

গাড়ি ওয়াশ সেন্টার খুলুন (open car wash center)

আপনি যদি গাড়ি ধোয়ার ব্যবসায়ী একটু বেশি পরিমাণের পুঁজি বিনিয়োগ করতে পারেন তাহলে আপনি খুলতে পারেন গাড়ি ওয়াশ সেন্টার। বর্তমানে অটোমেটিক মেশিন লাগিয়ে আপনি গাড়ি ওয়াশ সেন্টারে কাজ করে অনেক বেশি পরিমাণে গাড়ি ধোয়া থেকে ইনকাম করতে পারেন। তবে এক্ষেত্রে গাড়ি-ওয়াস সেন্টার এর অবস্থান অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। অর্থাৎ আপনাকে এমন একটি জায়গা নির্বাচন করতে হবে যা একাধিক গাড়ি রাখার পক্ষে যথেষ্ট এবং রাস্তার ধারে ও খুব সহজেই কাস্টমার যাতে আপনার কাছে এসে গাড়ি ওয়াশ করতে পারে তা দেখা।

গাড়ি ওয়াশ সেন্টার করতে গেলে আপনাকে একটি জায়গা ভাড়া নিতে হবে এবং প্রয়োজনীয় অটোমেটিক মেশিন কিনতে 10 থেকে 15 লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করতে হবে। এছাড়া কর্মচারীদের বেতন সহ একাধিক যন্ত্রপাতি কিনতে হবে। তবে গাড়ি ওয়াশ সেন্টার শহরাঞ্চলে রাস্তার ধারে হওয়া একান্ত প্রয়োজনীয়।

আরো পড়ুন- কাজু ও কিসমিস এর হোলসেল ব্যবসা

গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা করতে কি কি লাইসেন্স ও অনুমোদন লাগে?

গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা ছোট করে করতে গেলে কোনরকম লাইসেন্স অনুমোদনের আপনার প্রয়োজন পড়বে না। তবে আপনি যদি বড় করে গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা শুরু করেন বা গাড়ি ওয়াশ সেন্টার তৈরি করেন তাহলে অবশ্যই আপনাকে বেশ কয়েক রকমের লাইসেন্স ও অনুমোদন নিতে হবে।

  • ওয়াটার পারমিট: গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা করতে গেলে অবশ্যই আপনাকে সরকারের কাছ থেকে ওয়াটার পারমিট করাতে হবে। কারণ ভারত সরকার 800 লিটার জল প্রতিদিন ব্যবহার করার পারমিট দিয়ে থাকেন। আর যেহেতু গাড়ি ধোয়ার ব্যবসাতে পর্যাপ্ত পরিমাণে জল লাগে তাই অবশ্যই আপনাকে ওয়াটার পারমিট নিয়েই ব্যবসা করতে হবে।
  • ল্যান্ড পারমিট: আপনি যে জায়গায় গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা করতে চাইছেন এবং গাড়ি ওয়াশ সেন্টার তৈরি করছেন তার ল্যান্ড পারমিট আপনাকে নিতে হবে জায়গার মালিকের কাছ থেকে এবং সরকারের কাছ থেকে একটি সার্টিফিকেট নিতে হবে। এক্ষেত্রে আপনি যদি কোন আবাসিক অঞ্চলে গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা করেন সেক্ষেত্রে ওই এলাকার জায়গার জন্য আপনাকে সরকারের কাছ থেকে ল্যান্ড পারমিট নিতে হবে। আর আপনি যদি নিজস্ব জায়গাতে কারো ওয়াস সেন্টার তৈরি করেন সেক্ষেত্রে আপনার কোন ল্যান্ড পারমিট এর প্রয়োজন পড়বে না।
  • জি এস টি নাম্বার: আপনার ব্যবসায় প্রতিমাসে দুই থেকে চার লক্ষ টাকা যখন আয় করবেন তখন আপনাকে GST নাম্বার নিতে হবে। তবে বর্তমান সময়ে ভারত সরকার প্রতিটা ব্যবসায়ীকেই ব্যবসার শুরুতেই জিএসটি নাম্বার নিয়ে নেবার কথা বলেন। GST নাম্বার থাকলে আপনার ব্যবসার আয় ব্যয় সম্পর্কিত সকল তথ্য সরকারের কাছে সর্বদান অতিভুক্ত থাকে।
  • ট্রেড লাইসেন্স: প্রতিটা ব্যবসায়ী কি ব্যবসা করতে গেলে ট্রেড লাইসেন্স নিতে হয়। আর আপনি যদি গাড়ি ওয়াশ সেন্টার তৈরি করেন এবং বড় করে গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা শুরু করেন সে ক্ষেত্রে আপনাকেও ট্রেড লাইসেন্স নিতে হবে।

আর এই সকল লাইসেন্স এবং অনুমোদন পত্র পাবার জন্য আপনাকে আপনার নিকটবর্তী পঞ্চায়েত অফিস অথবা বিডিও অফিস কিংবা কর্পোরেশন অফিসে যোগাযোগ করতে হবে। এছাড়া আপনি চাইলে বর্তমান সময়ে প্রতিটা লাইসেন্সের জন্য অনলাইনে আবেদন করেই পেয়ে যেতে পারেন।

গাড়ি ধোয়ার ব্যবসায় কর্মচারী নিয়োগ

গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা আপনি ছোট করে যখন শুরু করবেন তখন আপনি একা কাজ করলেও ব্যবসা বড় করার জন্য এবং বেশি ইনকাম করার জন্য অবশ্যই আপনাকে একাধিক কর্মচারী নিয়োগ করতে হবে। এক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই নিয়োগের আগে প্রতিটা কর্মচারীকে যথাযোগ্য প্রশিক্ষণ দিয়েই নিয়োগ করতে হবে। কারণ কাস্টমারের অনেক সময় ভালোবাসার প্রিয় গাড়ি, যদি সুন্দর করে পরিষ্কার না করা হয় সে ক্ষেত্রে কাস্টমার মনঃক্ষুণ্ণ হন। তাই প্রতিটা কর্মচারী যাতে সুন্দরভাবে এবং ভালো করে গাড়ি ধোয়ার কাজ করতে পারেন ও গাড়ি পরিষ্কার করার কাজ করতে পারেন তার জন্য আপনাকে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ দিয়ে কাজে নিয়োগ করতে হবে।

অবশ্যই পড়ুন- মুড়ি ভাজার ব্যবসা করে প্রতিদিন 3000 টাকা আয়

গাড়ি ধোয়ার ব্যবসার মার্কেটিং কিভাবে করবেন?

বর্তমান সময়ে গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা করতে গেলে আপনাকে ভালোভাবে মার্কেটিং করতে হবে। কারন আমরা সকলেই জানি প্রতিটা ব্যবসায় এখন এত পরিমাণে কম্পিটিশন বেড়ে গেছে যে সঠিকভাবে যদি মার্কেটিং না করা যায় তাহলে উপযুক্ত লাভ থাকেনা কোন ব্যবসাতে। আর আপনি যদি উচ্চমানের গাড়ি ওয়াশ সেন্টার তৈরি করেন তাহলে তো অবশ্যই আপনাকে ভালোভাবে মার্কেটিং করতেই হবে। এছাড়া আপনার গ্রাহকদের ভালোভাবে সেবা প্রদান করার জন্য ব্যবসায় আধুনিক পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে। আর আপনি যদি বাড়ি বাড়ি গিয়ে গাড়ি ধোয়ার ব্যবসার কাজ করেন সেক্ষেত্রেও আপনার মার্কেটিংয়ের প্রয়োজন রয়েছে। তাই যে পদ্ধতিতে মার্কেটিং করলে আপনার ব্যবসা উন্নতি করবে তা হলো-

  • আপনি যে এলাকায় থাকেন তার আশেপাশের আবাসিক গুলির গেটে পোস্টার মারতে পারেন।
  • আপনার এলাকার জনবহুল মোড় গুলিতে বড় ফ্লেক্স ছাপিয়ে প্রচার করতে পারেন।
  • যেখানে আপনি গাড়ী ওয়াশ সেন্টার তৈরি করবেন তার কাছাকাছি এলাকাতে ব্যবসা শুরুর দিকে মাইকিং করে প্রচার করতে পারেন।
  • এছাড়া আপনি ফেসবুক ইনস্টাগ্রাম ইউটিউবে পেজ তৈরি করে আপনার ব্যবসার প্রচার করতে পারেন।
  • আপনার এলাকার গ্যারেজ গাড়ির এবং শোরুম এর আশেপাশে ফ্লেক্স ও হোডিং লাগিয়ে প্রচার করতে পারেন।
  • ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, ইউটিউবে বিজ্ঞাপন দিয়ে আপনার এলাকা মধ্যে প্রচার করতে পারেন।
  • আপনি যে শহরে ব্যবসা শুরু করবেন সেই অঞ্চলের প্রতিটা লোকাল পত্রিকা এবং বড় পত্রিকাতে বিজ্ঞাপন দিতে পারেন।
  • শহরাঞ্চলের অলিতে গলিতে ইলেকট্রিক পোস্টে ও বাড়ির দেয়ালে পোস্টার লাগিয়ে বিজ্ঞাপন দিতে পারেন।

কিভাবে গাড়ি ধোয়া হয়? ((How is the car washed?)

গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা করতে গেলে অবশ্যই আপনাকে গাড়ি ধোয়া জানতে হবে। শুধুমাত্র গাড়ির জল দিয়ে এবং শ্যাম্পু দিয়ে ঘষে পরিষ্কার করলেই সুন্দরভাবে গাড়ি পরিষ্কার করা হয় না। এক্ষেত্রে গাড়ি পরিষ্কার করার জন্য ও গাড়ি ধোয়ার জন্য আপনি এই পদ্ধতিগুলি অবলম্বন করতে পারেন-

  • গাড়ি ধোয়ার স্প্রে দিয়ে ভালো করে গাড়িকে প্রথমে জল দিয়ে ভিজিয়ে নিন।
  • গাড়ি ধোয়ার শ্যাম্পু দিয়ে ভালো করে গাড়িতে স্প্রে করুন অথবা car wash spray দিয়ে গাড়িতে স্প্রে করুন।
  • স্পঞ্জ দিয়ে গাড়িটি ভালো করে পরিষ্কার করে জল স্প্রে করে ধুয়ে দিন।
  • শুকনো কাপড় দিয়ে ভালো করে গাড়ি থেকে জল মুছে দিন। বা অল্প রোদ হাওয়া খাইয়ে জল শুকনো হয়ে গেলে গাড়িটি আরেকবার ভালো করে পরিষ্কার করে দিন।
  • গাড়ি ধোয়ার সময় গাড়ির ওপরের সাথে সাথে গাড়ির নিচেও আপনাকে জল স্প্রে দিয়ে ভালো করে পরিষ্কার করতে হবে।

গাড়ি ধোয়ার ব্যবসায় লাভ কত?

গাড়ি ধোয়ার ব্যবসায় লাভের পরিমাণ অনেকটাই বেশি হতে পারে আপনি কোথায় ব্যবসা করছেন এবং প্রতিদিন কটা গাড়ি ধুচ্ছেন তার ওপর। সাধারণত বর্তমানে একটা গাড়ি ধোয়ার জন্য 250 টাকা থেকে 350 টাকা দিতে হয়। এক্ষেত্রে বিভিন্ন শহর অনুযায়ী টাকার পরিমান বেড়ে দাঁড়ায় 450 টাকা থেকে 500 টাকায়। তবে আপনি ব্যবসার শুরুতে কাস্টমার বেশি পাওয়ার জন্য এত টাকা চার্জ না করে 250 টাকা প্রতি গাড়ি ধোয়ার জন্য নিতে পারেন। আর আপনি যদি সারাদিনে 10 টা গাড়ি ধুতে পারেন তাহলে আপনি প্রতিদিন 2500 টাকা ইনকাম করবেন

আর প্রতিমাসের ইনকাম আপনার লাখ টাকারও বেশি দাঁড়িয়ে যাবে। তবে ব্যবসার শুরুতে এত পরিমাণে লাভ না থাকলেও ধীরে ধীরে আপনার ব্যবসায় প্রতিমাসে 1-2 লাখ টাকা ইনকাম করা এমন কোন ব্যাপার হবে না। বড় বড় গাড়ি ধোয়ার ব্যবসায়ী শুধুমাত্র গাড়ি ধুয়ে প্রতিমাসে 2-3 লাখ টাকা রোজগার করেন।

গাড়ি ধোয়ার ব্যবসায় সাবধানতা

গাড়ি ধোয়ার ব্যবসা করতে গেলে আপনাকে বেশ কিছু সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে। এই কারণে গাড়ি ধোয়ার ব্যবসার কর্মচারী নিয়োগের আগে আপনাকে উপযুক্ত ট্রেনিং দিয়েই নিয়োগ করতে হবে। আর এই ব্যবসা করতে গেলে যে সকল সাবধানতা আপনাকে অবলম্বন করতে হবে তা হল-

  • ভালো করে গাড়ি পরিষ্কার না করলে গ্রাহকের সংখ্যা কমে যাবে।
  • গাড়ি পরিষ্কার করাতে তাড়াহুড়ো করে যদি কোন গাড়ির ক্ষতি হয়ে যায় তার জন্য ক্ষতিপূরণ আপনাকে দিতে হবে।
  • গাড়ি পরিষ্কার করার সময় সাবধানতা অবলম্বন না করলে গাড়িতে দাগ হয়ে যেতে পারে। এই দামি গাড়িতে দাগের জন্য আপনাকে ক্ষতিপূরণ দিতে হতে পারে।
  • Car wash center তৈরি করলে অটোমেটিক মেশিনের মধ্য যেন কোন যান্ত্রিক গোলযোগ না হয় তার দিকে খেয়াল রাখতে হবে

নতুন নতুন ব্যবসার আইডিয়া দেখুন-

পাঁপড় তৈরির ব্যবসা করুন 5 হাজার টাকায়

কাঁচের চুড়ির ব্যবসা করুন মাত্র 10 হাজার টাকায়

Leave a Comment