খাতা তৈরির ব্যবসা করে প্রতিদিন 20 হাজার টাকা ইনকাম করুন Notebook making business RIGHT NOW

খাতা তৈরির ব্যবসা এমন একটি ব্যবসা যা অতীতেও চলেছে বর্তমানে চলছে এবং ভবিষ্যতেও সারা জীবন ধরে চলতেই থাকবে। তাই খাতা তৈরির ব্যবসা যদি আপনারা করতে পারেন তাহলে বছরের 12 টা মাস সমান ভাবে আপনারা এই ব্যবসা চালিয়ে যেতে পারবেন। এবং প্রতিমাসে কম করে 3 লক্ষ টাকা ইনকাম করতে পারবেন এই ব্যবসা থেকে।

Table of Contents

খাতা বা নোটবুক তৈরীর ব্যবসায় কত টাকা খরচ হয়?

খাতা বা নোটবুক তৈরির ব্যবসা করতে গেলে আপনার মূল পুঁজি লাগবে মাত্র 8-10 হাজার টাকা। যা মূলত একটি মেশিন সহ কাঁচামাল কিনতে আপনার খরচ হবে। বুঝতেই পারছেন অল্প টাকা খরচ করে আপনি এই ব্যবসা রমরমিয়ে করতে পারেন বাজারে।

খাতা তৈরির ব্যবসা

কাঁচামাল কি কি লাগে খাতা তৈরির ব্যবসায়?

খাতা তৈরির ব্যবসা করতে গেলে প্রথমে যে কাঁচামাল টি লাগে সেটি হল কাগজ।
২: কাগজ ছাড়া আর যা লাগে তা হলো আঁঠা বা গ্লু।
৩: খাতার মলাট বা প্লাস্টিক।
৪: স্পাইরাল।
এইসকল কাঁচামাল গুলি হলেই আপনি বাড়িতে ডজন ডজন খাতা তৈরি করতে পারবেন এবং তা বাজারে বিক্রি করে লাভবান হতে পারবেন।

কাগজের মার্কেট কোথায় পাওয়া যাবে? | কাঁচামাল কোথায় কিনতে পাওয়া যায়?

পশ্চিমবঙ্গে কাগজের মার্কেট বলতে সবাই এক কথায় চেনে কলেজস্ট্রিট কে। আপনিও চাইলে কলকাতা কলেজ স্ট্রিট থেকে খুবই অল্প মূল্যে কেজি দরে কাগজ কিনতে পারেন।

বাংলাদেশের ঢাকা বাবুবাজার এবং মিরপুরের কাগজের মার্কেট থেকে আপনারা খুব অল্প মূল্যে কাগজ কিনতে পারবেন। এই সকল বাজার ছাড়াও আপনি চাইলে আপনার নিকটবর্তী যেকোনো বড় মার্কেট থেকে কাঁচামাল এবং কাগজ সমস্ত জিনিসটাই কিনতে পারবেন।

খাতা বা নোটবুক তৈরীর মেশিন কত রকমের হয়?

প্রথমত আমাদের জানতে হবে খাতার কত রকমের হয়-
পিনাপ করা খাতা, আঁঠা বা গ্লু দেওয়া খাতা, স্পাইরাল করা খাতা, মোটা কার্ড মলাটের তৈরি খাতা।

এইসকল খাতা তৈরি করার মেশিন ও 3 ধরনের হয়ে থাকে।
স্পাইরাল খাতা মেশিন, অটোমেটিক গ্লু বাইন্ডিং মেশিন, অটোমেটিক পিনাপ খাতা তৈরি মেশিন, হ্যান্ড মেড কাটিং মেশিন।

খাতা তৈরি মেশিনের দাম কত?

স্পাইরাল খাতা তৈরির মেশিনের দাম 6-8 হাজার টাকা।
অটোমেটিক আঁঠা বাইন্ডিং মেশিন এর দাম 8-10 হাজার টাকা।
হ্যান্ড মেড পেপার কাটিং মেশিনের দাম 1-2 হাজার টাকা

খাতা তৈরির ব্যবসা

খাতা তৈরির মেশিন কোথায় কিনতে পাওয়া যায়?

খাতা তৈরির মেশিন আপনার নিকটবর্তী বড় মার্কেট অথবা যেখান থেকে আপনি কাগজ কিনবেন সেখান থেকেই পেয়ে যেতে পারেন। তবুও যে সকল মেশিন বিক্রেতারা শুধুমাত্র মেশিন সহ কাঁচামাল বিক্রি করে থাকেন, তাদের সকলের নাম্বার এবং ডিটেলস আমি নিচে দিয়ে দিলাম।
ভারতে থাকলে আপনি ইন্ডিয়ামার্ট, অথবা অ্যামাজন , ফ্লিপকার্ট থেকে মেশিন কিনতে পারবেন।
বাংলাদেশে থাকলে আপনি ঢাকা বাবুবাজারে মেশিন বিক্রেতা পেয়ে যাবেন।
ফোন নাম্বার 018 928 13245 / 01879 976968 এই যোগাযোগ নাম্বারে আপনি ফোন করলে মেশিনসহ কাঁচামাল সমস্তটাই আপনি কিনতে পারবেন।

কত বড় জায়গার প্রয়োজন হয় খাতা তৈরির ব্যবসা করতে?

আপনার ঘরের সাইজের একটি ঘর অথবা অফিসের এক কোণে ও আপনি মেশিন বসিয়ে ব্যবসা করতে পারবেন । এই মেশিনগুলোর আয়তন হয় খুবই ছোট, তাই খাতা তৈরির ব্যবসা করতে আপনার খুব বেশী বড় জায়গার একদমই প্রয়োজন পড়ে না।

খাতা কিভাবে তৈরি হয়?

খাতা তৈরি করা খুবই সহজ একবার এক ঘন্টা যদি আপনাকে দেখানো হয় কিভাবে খাতা আপনি তৈরি করবেন । আমার নিচে লেখা গুলি যদি সমস্তটা পড়েন তাহলে আপনি খুব সহজে সুন্দর ভাবে খাতা তৈরি করতে পারবেন।

মলাটের তৈরি খাতা

স্পাইরাল খাতা তৈরি হয় কিভাবে?

বাজার থেকে কিনে আনতে হবে আপনাকে কাগজ। সেই কাগজগুলো প্রথমে জেনে নিন কটা করে দেবেন আপনি খাতার মধ্যে।
ধরে নেওয়া যাক তিরিশটি কাগজ একসাথে নিয়ে আপনি প্রথমে সাজিয়ে নেই তারপর সেই কাগজগুলি স্পাইরাল মেশিনে ঢুকিয়ে একটু চাপ দিলেই কাগজগুলোর এক সাইটে এক লাইন বরাবর ফুটো হয়ে যাবে।
তারপর ঠিক ফুটো বরাবর স্পাইরাল গুলি পাঠিয়ে দিন এবং তারসাথে মলাটের যে প্লাস্টিক বা কাগজ আপনি কিনে এনেছিলেন সেগুলো সুন্দর করে ওই স্পাইরালের মধ্যে পুরে খাতা তৈরি করে ফেলুন।

সুন্দর মলাটের খাতা কিভাবে তৈরি করা হয়?

প্রথমে কাগজ নিয়ে রেডি করুন, তারপর সেই কাগজগুলি সুন্দর করে গুছিয়ে আঁঠা বাইন্ডিং মেশিন দিয়ে দিন এবং আঁঠা বাইন্ডিং মেশিন যেখানে আঁঠা দেবার জায়গা আছে সেখানে আঁঠা ঢেলে দিন এবং মেশিন চালিয়ে দিন।
তারপর যে মৌলটি আপনি খাতা বাইন্ডিং করবেন সেই মালাটি সাইজ অনুযায়ী রেখে সেট করুন এরপর মেশিনটির হ্যান্ডেল একদিক দিয়ে ঘোরালেই আপনার খাতার পৃষ্ঠাগুলি আঁঠা সঙ্গে সুন্দর করে মেখে মলাটের সঙ্গে খুব সুন্দর ভাবে জুড়ে যায় এবং চোখের নিমেষে খাতা তৈরি হয়ে যায়।
অটোমেটিক আঁঠা বাইন্ডিং মেশিন এ প্রতিদিন তিন থেকে চার হাজার পিস খাতা তৈরি করতে পারবেন।

খাতা কাটা হয় কিভাবে?

খাতা কাটার জন্য আপনাকে হ্যান্ড মেড কাগজ কাটিং মেশিন ব্যবহার করতে হবে। কাগজ কাটিং মেশিনের খাতাগুলি দেয়ার পর সাইটের বাড়তি অংশগুলি সুন্দর করে চাপ দিয়ে কেটে নিন এবং সেটা বাজারে বিক্রি করার জন্য খাতা প্রস্তুত করে দেবে খুব সহজেই।

খাতা তৈরির ব্যবসা করতে কি কি লাইসেন্স লাগে?

খাতা তৈরির ব্যবসা করতে আপনাকে প্রথমেই ট্রেড লাইসেন্স নিতে হবে। যে কোন ব্যবসার আগেই ট্রেড লাইসেন্স নেওয়াটা অত্যান্ত জরুরী। ট্রেড লাইসেন্স আপনি আপনার নিকটবর্তী পঞ্চায়েত অথবা কর্পোরেশন ,বিডিও থেকে পেয়ে যাবেন। এখন অনলাইনে এপ্লাই করে ট্রেড লাইসেন্স পাওয়া যায়।

ব্যবসায় যখন আপনার মাসে তিন লক্ষ থেকে চার লক্ষ টাকা ইনকাম হবে তখন আপনাকে একটি GST লাইসেন্স নিতে হবে ।

ব্যবসায় ইন্সুরেন্স করাটা কতটা জরুরি?

আমরা যখন আমাদের জীবনের জন্য লাইফ ইন্সুরেন্স বা জীবন বীমা করে থাকি তেমনি ব্যবসা করতে হলে ব্যবসার শুরুতেই ইন্সুরেন্স বা বীমা করাটা ততটাই জরুরি। কারণ আপনি বা আমি কেউই বলতে পারিনা ব্যবসায় কোন সময় কোন বিপদের সম্মুখীন হতে হয় এবং কতটা লজ্জার সম্মুখীন হতে হয়, তাই সেই সমস্ত বিপদ থেকে বাঁচার জন্য ইন্সুরেন্স করার থাকলে আপনার সেই বিপদ থেকে অনেকটাই আপনাকে রক্ষা দিতে পারে একটি ইন্সুরেন্স।

খাতার মার্কেটিং কিভাবে করতে হয়?

খাতা তৈরি করার পর বাজারে বিক্রি করাটা ততটাই সহজ তাই বিক্রি প্রক্রিয়া অথবা মার্কেটিং প্রক্রিয়াটি আপনাকে আপনাকে জানতে হবে প্রথমে।
প্রতিটি বই-খাতার দোকান সহ এখন গ্রামের প্রতিটা মুদিখানা দোকানের খাতাটা লিখতে হয় ছেলেমেয়েদের জন্য তাই প্রথমে আপনাকে এই সমস্ত দোকানে আপনার তৈরি খাতাগুলি পৌঁছে দিতে হবে এবং দাম দোকানে বাকি সব কোম্পানিগুলির থেকে কম নিতে হবে। এইভাবে আপনি যদি ব্যবসা করতে থাকেন তাহলে খুব সহজেই আপনার তৈরি খাতা প্রতিটা দোকানে পৌঁছে যাবে এবং প্রতিটি দোকানদার আপনার কোম্পানির খাতায় কিনতে থাকবে।

খাতা edited

অনলাইনে খাতার মার্কেটিং কিভাবে করতে হয়?

বর্তমান সময়ে অনলাইন মার্কেটিং একটি বড় মার্কেটিং সাইট যেখান থেকে প্রতিটা ব্যবসায়ী প্রচুর পরিমাণে প্রোডাক্ট বিক্রি করেন এবং লাভবান হয়ে থাকেন। তাই আপনাকেও অনলাইনে খাতার ব্যবসা করতে হবে কিন্তু কিভাবে করবেন সেটাও খুব সহজ উপায়-প্রথমে অনলাইন যতগুলি বিজনেস সাইট রয়েছে যেমন অ্যামাজন, ফ্লিপকার্ট, ইন্ডিয়ামার্ট প্রভৃতি সাইটে আপনাকে একটি করে বিজনেস একাউন্ট খুলতে হবে তারপর আপনার প্রোডাক্ট গুলি অর্থাৎ খাতাগুলি ছবি সহ দাম ডিটেলস সমস্তটা নথিভুক্ত করতে হবে তারপর সাইটে আপলোড করে দেয়ার পর থেকেই দেখতে পাবেন যে সমস্ত ছাত্র-ছাত্রী সহ মানুষজন অনলাইন থেকে কেনাকাটা করে থাকে তারা সবাই আপনার কোম্পানির খাতাগুলি কিনতে থাকবে।

খাতার প্যাকেজিং কিভাবে করতে হয়?

খাতার মলাট যেন সুন্দর ডিজাইন করা এবং ছোট ছেলেমেয়ে সহ ছাত্র-ছাত্রীদের আকর্ষণ করার মত সুন্দর ছবিতে ভরা থাকে। এবং খাতাগুলি যে প্লাস্টিক এবং যে কোন কোয়ালিটির কাগজ দিয়ে মলাট করবেন সেটি যেন উন্নত মানের হয়ে থাকে। এই ভাবে যদি আপনি খাতা সুন্দরভাবে তৈরি করতে পারেন তাহলে আপনার খাতা খুব সহজে মার্কেটে বিক্রির জন্য উন্নত মানের হয়ে উঠবে।

খাতা তৈরির ব্যবসা কত টাকা লাভ হয়?

প্রতিটি খাতা তৈরি করতে খরচ হয় 14 থেকে 19 টাকা আর সেই খাতা বাজারে পাইকারি রেটে বিক্রি করতে পারেন 22 থেকে 27 টাকা দামে।
অর্থাৎ একটি খাতা থেকে আপনার লাভ হয় 8 থেকে 10 টাকা।
প্রতিদিন একটি মেশিন দুই থেকে তিন হাজার খাতা তৈরি করে থাকে। আপনি যদি সুন্দর করে সফল মার্কেটিং করতে পারেন তাহলে প্রতিদিন আপনি 30000 টাকা ইনকাম করতে পারবেন এই ব্যবসা থেকে।

খাতা তৈরির ব্যবসায় কি কি সমস্যা আসতে পারে?

খাতা তৈরির ব্যবসা করতে গেলে আপনাকে প্রথমে মাথায় রাখতে হবে মার্কেটিং আপনি কিভাবে করবেন মার্কেটিং যদি আপনি বেশি ভালোভাবে করতে না পারেন তাহলে মাসে দু লক্ষ তিন লক্ষ টাকা ইনকাম করতে পারবেন না তবে অল্প মার্কেটিং করেও আপনি মাসে 30 40 হাজার টাকা ইনকাম করতে পারেন।
বাজারে অনেক নামিদামি কোম্পানির খাতা বিক্রি হয় এবং তাদের কোয়ালিটিও অনেক সুন্দর তাই আপনাকে চেষ্টা করতে হবে আপনার খাতার কোয়ালিটি যেন তাদের থেকে খারাপ না হয়। দামের ওপরেও আপনাকে নজর দিতে হবে। এই সকল জিনিসগুলো যদি আপনি খেয়াল করেন তাহলে আপনি একজন সফল খাতার ব্যবসায়ী হয়ে উঠতে পারবেন।

অল্প খরচে ব্যবসার আইডিয়া পেতে দেখুন এই ব্যবসার আইডিয়া গুলি-

বিস্কুট তৈরির ব্যবসা / প্লাস্টিক আইটেমের পাইকারি / স্কাইবার প্যাকেজিং ব্যবসা